সিডনী বুধবার, ৩রা মার্চ ২০২১, ১৮ই ফাল্গুন ১৪২৭


ফেব্রুয়ারিতে খুলতে পারে বাংলাদেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান : মু: মাহবুবুর রহমান


প্রকাশিত:
২৫ জানুয়ারী ২০২১ ১৩:০৮

আপডেট:
৩ মার্চ ২০২১ ০১:২৮

 

এবছর ফেব্রুয়ারি মাস থেকে বাংলাদেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হতে পারে। বাংলাদেশে করোনা মহামারির শীতকালীন ঢেউ শক্তিশালী না হওয়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আর বাড়ানো হচ্ছে না বলে জানা গেছে। করোনা ভাইরাসের কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি চলছে। সর্বশেষ ঘোষণা অনুযায়ী, ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি আছে।

প্রায় এগারো মাস বন্ধ থাকার মধ্যে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার আগে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিতে স্কুল-কলেজগুলোকে প্রস্তুত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। কবে নাগাদ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলবে তা পরিস্থিতি দেখে সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রতিষ্ঠানগুলোকে প্রস্তুত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারী) শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির সভাপতিত্বে অনলাইনে এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ‘করোনাকালীন শিক্ষা কার্যক্রম চলমান রাখা’ সংক্রান্ত এই ভার্চ্যুয়াল সভায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমনুল ইসলাম খানসহ শিক্ষা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা অংশ নেন।

বৈঠক সূত্রে জানা যায়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্মত হয়েছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কীভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে, কোন প্রক্রিয়ায় খোলা হবে সেটি তারা ঠিক করবেন। এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন খুব শিগগিরই প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হবে।

আরেকটি সূত্র থেকে জানা যায়, ফেব্রুয়ারি থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলেও ক্লাসের ক্ষেত্রে যাদের পরীক্ষা আছে, তাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। এ ক্ষেত্রে ২০২১ সালের এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা প্রাধান্য পাবে। প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চিঠি পাঠানো হবে। যাতে ফেব্রুয়ারির ৪ তারিখের মধ্যে এসএসসি ও এইচএসসির ক্লাস শুরু করা যায়।

এদিকে গণসাক্ষরতা অভিযানের এডুকেশন ওয়াচ নামে এক সমীক্ষার তথ্য বলছে, প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের ৭৫ শতাংশ শিক্ষার্থী ও ৭৬ শতাংশ অভিভাবক বিদ্যালয় খুলে দেওয়ার পক্ষে তাদের মত দিয়েছেন। জাতীয় সংসদেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে আলোচনা হয়েছে।  

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর ১৭ মার্চ থেকে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। ২৬ মার্চ থেকে সারাদেশে সব অফিস-আদালত আর যানবাহন চলাচল বন্ধ করা হয়। টানা ৬৬ দিন সাধারণ ছুটির পর ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে অফিস খুলে যানবাহন চলাচল শুরু হলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধই থাকে। কয়েক ধাপে বাড়ানোর পর এবছর ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি আছে।

২১ জানুয়ারী বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনা হলো, এ বছর ফেব্রুয়ারি থেকে প্রথমে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের শ্রেণিকক্ষে ফেরানো হবে। এরপর পরিস্থিতি বিবেচনা করে, অন্যান্য স্তরের শিক্ষার্থীদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

তবে প্রকৃত অর্থে কবে থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে, সেটি নির্ভর করছে করোনা সংক্রমণের পরিস্থিতি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা ও করোনা সংক্রমণ মোকাবিলা সংক্রান্ত। 


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top