সিডনী বুধবার, ২৭শে মে ২০২০, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭


তিন ধাপে শুরু হবে অস্ট্রেলিয়ার সকল অর্থনৈতিক কর্মকান্ড


প্রকাশিত:
৯ মে ২০২০ ১৪:৩৬

আপডেট:
৯ মে ২০২০ ১৪:৩৮

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন

 

প্রভাত ফেরী: করোনা পরিস্থিতিতে গোটাবিশ্বের অর্থনীতিতে স্থবিরতা দিন দিন বেড়েই চলেছে। অনেকদেশ অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে লকডাউন শিথিলের ঘোষণাও দিয়ে রেখেছে। এবার সেই পথেই হাটলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনও। আগামী জুলাই এর মধ্যে তিনধাপে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড পুনরায় চালুর কথা বলছেন তিনি।  এরসাথে চালু হবে দেশটির সামাজিক কর্মকান্ডও। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান স্কট মরিসন।

আগামী জুলাইয়ের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার ৮ লাখ ৫০ হাজার মানুষ নিজেদের হারানো চাকরি খুঁজে পাবে। ধারাবাহিক ভাবে খুলে দেওয়া হবে ক্যাফে, সিনেমা জিম রেস্তোরা। সেই সাথে ১০০ জন মানুষের এক জায়গায় জমায়েতের অনুমতি এবং রাজ্যের অভ্যন্তরে ভ্রমণের অনুমতি দেওয়া হবে।

প্রথম ধাপে ১০ জন মানুষ একসাথে জমায়েত হতে পারবে আর সর্বোচ্চ পাঁচজন বাড়িতে অতিথি ভ্রমণ করতে পারবে। বাচ্চাদের জন্য খেলার মাঠ ও স্কুল উন্মুক্ত করে দেয়া হবে, এমনকি এক সাথে ১০ জন নিয়ে বিয়েসহ অন্যান্য অনুষ্ঠান করা যাবে। ছোট দোকান ও ক্যাফেগুলোও সেই সাথে খুলে দেওয়া হচ্ছে।

এরপরেও যদি সবকিছু স্বাভাবিক থাকে তাহলে ২য় ধাপের অংশ হিসেবে ২০ জনের সমাগমে অনুমতি দিবে সরকার। দোকান সহ অর্থনীতি নির্ভরশীল প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেয়া হবে। ২০ জন দর্শক দিয়ে সিনেমা হল চালানো যাবে। বিউটি পার্লার খুলে দেয়া হবে।

৩য় ধাপে জন-সমাগমের সংখ্যা একশর উপরে নিয়ে যাওয়া হবে। কর্মচারী ও শ্রমিকরা কর্মস্থলে ফিরে যেতে পারবেন। বিনোদনের জন্য ক্লাব খুলে দেওয়া হবে।   এবং কিছু বিধি নিষেধের মাধ্যমে বারগুলোও খুলে দেয়া হবে।


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top