সিডনী বুধবার, ২৭শে মে ২০২০, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

বাংলাদেশের জন্য এডিবির ৮০০ কোটি টাকার ঋণ অনুমোদন


প্রকাশিত:
১০ মে ২০২০ ১৪:৩৯

আপডেট:
২৭ মে ২০২০ ১২:৩৮

ফাইল ছবি

 

প্রভাত ফেরী: মহামারি করোনাভাইরাস মোকাবেলায় বাংলাদেশকে প্রায় প্রায় ৮৩০ কোটি টাকা ঋণ সহায়তা দিচ্ছে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক।  এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।  এতে বলা হয়, জনস্বাস্থ্য ক্ষেত্রে জরুরি প্রয়োজন মেটানোর জন্য বাংলাদেশকে এই অর্থ দিচ্ছে সংস্থাটি।

করোনা নির্ণয়ের জন্য টেস্টিং কিট ও অন্য যন্ত্রপাতি ক্রয়, মেডিক্যাল অবকাঠামো উন্নতকরণ এবং সমাজে নজরদারি, রোগ বিস্তার প্রতিরোধ ও মহামারি সময়ে করণীয় পদক্ষেপ নিতে প্রশিক্ষণের জন্য এই সহায়তার অর্থ ব্যয় করা যাবে বলে এতে বলা হয়।

দেশের ১৭টি মেডিক্যাল কলেজে আইসোলেশন ও ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট তৈরি করা হবে। পাশাপাশি কভিড-১৯ পরীক্ষা করতে পারে এমন অন্তত ১৯টি ল্যাব উন্নত করা হবে হবে এই অর্থ দিয়ে বলে জানানো হয়। এছাড়া করোনা প্রতিরোধে ৩৫০০ স্বাস্থ্যকর্মীর আধুনিক দক্ষতা বাড়াতে প্রশিক্ষণের জন্য এই সহায়তার অর্থ ব্যয় করা যাবে। তবে এ সংখ্যার অর্ধেক অবশ্যই নারী স্বাস্থকর্মী হতে হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশসহ গোটা বিশ্বে চলছে করোনাভাইরাসের দাপট। সামনে আরও মারাত্মক হয়ে উঠতে পারে এটি, এমন আশঙ্কা করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। তাই দেশে জরুরী ভিত্তিতে পর্যাপ্ত ভেন্টিলেটর ও আইসোলেশনের ব্যবস্থা করছে সরকার। কোভিড-১৯ রেসপন্স এ্যান্ড ইমার্জেন্সি এ্যাসিসটেন্স প্রকল্পের আওতায় এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

এছাড়া করোনাভাইরাস মোকাবেলায় জরুরী ভিত্তিতে সাড়ে তিন হাজার ডাক্তার ও নার্সকে এ সংক্রান্ত বিষয়ে আধুনিক প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। এমনকি স্টাফদেরও প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। পাশাপাশি প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভেন্টিলেটর স্থাপন করা হবে। এছাড়া ১৭টি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, ১৭টি আইসোলেশন, ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটসহ ১৯টি ল্যাবকে আপগ্রেড করা হবে এই প্রকল্পের আওতায়।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top