সিডনী বুধবার, ২১শে অক্টোবর ২০২০, ৬ই কার্তিক ১৪২৭

সরবরাহ বেড়েই চলেছে আমদানিকৃত পেঁয়াজের


প্রকাশিত:
৭ অক্টোবর ২০২০ ১৭:১১

আপডেট:
২১ অক্টোবর ২০২০ ০৮:১৮

 

প্রভাত ফেরী: চাক্তাই-খাতুনগঞ্জের পাইকারি বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজের মজুদ শেষ হয়ে গেছে। এখন বিক্রি হচ্ছে বিকল্প দেশ থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ। চট্টগ্রাম বন্দরে প্রতিদিনই খালাস হচ্ছে আমদানিকৃত পেঁয়াজের চালান।

সোম ও মঙ্গলবার দুদিনে উদ্ভিদ সঙ্গনিরোধ কেন্দ্র বন্দর থেকে ২৪৬৫ টন পেঁয়াজ খালাসের ছাড়পত্র দিয়েছে। পাইপলাইনে রয়েছে আরও অনেক চালান। ভারত পেঁয়াজ রফতানি নিষিদ্ধ ঘোষণার পর অন্যান্য দেশ থেকে আমদানির জন্য খোলা ঋণপত্রের (এলসি) বিপরীতে আসছে এসব পেঁয়াজ। মোট ১ লাখ ৬২ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির জন্য ৩৩৫টি ছাড়পত্রের মাধ্যমে খোলা এলসির বিপরীতে আসা পেঁয়াজের চালান প্রতিদিন খালাস হচ্ছে। পাশাপাশি দেশি পেঁয়াজের সরবরাহও রয়েছে বাজারে। চাক্তাই-খাতুনগঞ্জের পাইকারি বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে মানভেদে ৮০-৮৫ টাকা কেজি দরে। খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৯০-৯৫ টাকা দরে।

আড়তদাররা জানান, ভারতীয় পেঁয়াজ না থাকলেও বাজারে কোনো সঙ্কট নেই। আমদানি করা পেঁয়াজের সরবরাহ পর্যাপ্ত থাকায় দামও নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রয়েছে। যেসব দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে তার মধ্যে রয়েছে মিয়ানমার, পাকিস্তান, চীন, ইউক্রেন, দক্ষিণ আফ্রিকা, মালয়েশিয়া, মিসর, তুরস্ক, নিউজিল্যান্ড ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top