সিডনী সোমবার, ৬ই ডিসেম্বর ২০২১, ২২শে অগ্রহায়ণ ১৪২৮


সিডনিতে "সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাংলাদেশ" শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত


প্রকাশিত:
৮ নভেম্বর ২০২১ ১৪:৫৫

আপডেট:
৬ ডিসেম্বর ২০২১ ২৩:৩৩

 

সিডনিতে ৭ নভেম্বর রবিবার সাংবাদিকদের সংগঠন অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ প্রেস এন্ড মিডিয়া ক্লাব-এর আয়োজনে 'সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাংলাদেশ: Bangladesh: A Country of Social and Religious Liberalism' শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে৷ স্থানীয় সময় দুপুর ১ টায় শুরু হয়ে আলোচনা সভা চলে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত৷ সিডনির রকডেলের রেড রোজ ফাংশন সেন্টারে আয়োজিত আলোচনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লেবার পার্টির এমপি স্টিভ ক্যাম্পার ও এমপি আনুলাক চান্ডিভং৷ শ্যাডো মাল্টিকালচারাল মন্ত্রী ও এমপি স্টীভ ক্যম্পার তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশের মানুষের প্রশংসা করে বলেন, তিনি অবশ্যই অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ কম্যুনিটির বিকাশের সাথে কাজ করবেন এবং এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ও তার সরকারকে যাবতীয় সহযোগিতায় অস্ট্রেলিয়া পাশে থাকবে।


এছাড়া বাংলাদেশের ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তার বক্তব্য প্রদান করেন৷ অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের সম্পূর্ণ সদিচ্ছা আছে বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার বিষয়ে৷ প্রতিটি ঘটনায় সরকারের উচ্চপর্যায়ের নেতারা সেখানে গেছেন৷ আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে ৷ অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ নেতা গামা আবদুল কাদির বলেন, অবৈধ সরকার এরশাদের সময়কার অবৈধ সংসদে করা ধর্মীয় সংশোধনী সংবিধান থেকে অবৈধ ঘোষনা করতে হবে এবং সুপ্রীম কোর্টের রায় মোতেবেকই এটি করা যায়। সেমিনারে প্রতিন্ত্রীকে তিনি অনুরোধ করেন জিয়াউর রহমান ও এরশাদের করা সকল সংশোধনী বাতিল করতে হবে৷

সেমিনারটি উপস্থাপনা করেন সংগঠনের সদস্য ইঞ্জিনিয়ার আল নোমান শামীম৷ আয়োজক সংগঠনকে সহযোগিতা করেছে ব্রান্ডিং বাংলাদেশ, অষ্ট্রেলিয়া৷

সেমিনারে কথা বলেন অস্ট্রেলিয়া প্রেস এন্ড মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি রহমতুল্লাহ, আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার সাধারণ সম্পাদক ড. আবুল হাসনাৎ মিলটন৷ তিনি বলেন, কোনো এজেন্ডা নিয়ে নয়, এই সংকট সমাধানে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে৷ শেখ হাসিনাকে তিনি ধন্যবাদ ও সাধুবাদ জানান একটি সমৃদ্ধ দেশ উপহার দেয়ার জন্য৷ অনুষ্ঠানে শুরুর দিকে বক্তব্য রাখেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শফিকুল আলম ও ড. তুষার দাশ৷

সেমিনারে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন অস্ট্রেলিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার মোহাম্মদ শফিউর রহমান৷ অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি উপস্থিত ছিলেন, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী এনামুল হাসান, পিআরও আনোয়ারুল হোসেন, অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী মহিলা লীগের সভাপতি সেলিমা বেগম৷ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ প্রেস এন্ড মিডিয়া ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ টুটুল, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারন সম্পাদক এড নির্মল্য তালুকদার। আরো বক্তব্য রাখেন মিঃ পল মধু।

সেমিনারের মূল প্রস্তাবনা হিসেবে তিনটি বিষয় উঠে আসে, যা বাংলাদেশ সরকারের ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ হাই কমিশনের মাধ্যমে প্রস্তাব করা হয়ঃ
১। ধর্মীয় অসহিষ্ণুতার কারনে ঘটা অপরাধের শাস্তি,
২। অবৈধ এরশাদ সরকারের অবৈধ সংসদে পাশ করা রাস্ট্রধর্ম অধ্যাদেশ বাতিল,
৩। শিক্ষা ব্যবস্থা পুরোপুরি অসাম্প্রদায়িক করা।

সর্বধর্মীয় এই সেমিনারে আরো উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সাংবাদিক আবু রেজা আরেফিন, কম্যুনিটির সিনিয়র নেতা আব্দুল জলিল, এমদাদ হক, আসলাম মোল্লা, সাংবাদিক আকাশ দে, মিজানুর রহমান সুমন, মেরাজ হোসেন, মোঃ জাহাঙ্গীর, অন্নপূর্না দে, ডঃ বিপ্লব সাহা, দিবাকর সমাদ্দার, সাদ্দাম হোসেনসহ বেশ কয়েকটি মডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ৷ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ প্রেস এন্ড মিডিয়া ক্লাবের সদস্যবৃন্দ ও কমিউনিটির আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ৷


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top