সিডনী মঙ্গলবার, ২৮শে মে ২০২৪, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১


করোনা চিকিৎসায় মুখে খাওয়ার ওষুধ বিশ্বে প্রথম অনুমোদন দিল যুক্তরাজ্য : মু: মাহবুবুর রহমান


প্রকাশিত:
১০ নভেম্বর ২০২১ ০০:০৫

আপডেট:
২৮ মে ২০২৪ ০৯:৩২

 

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) চিকিৎসায় মুখে খাওয়ার ওষুধের অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য।

বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) করোনার ওষুধ মলনুপিরাভির (Molnupiravir) এর এই অনুমোদন দেয় দেশটি। মুখে খাওয়ার এ ওষুধটি তৈরি করেছে মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানি মার্ক অ্যান্ড রিজব্যাক বায়োথেরাপিউটিকস (Merck and Ridgeback Biotherapeutics')।

যুক্তরাজ্যের ওষুধ এবং স্বাস্থ্যসেবা পণ্য নিয়ন্ত্রক সংস্থা (এমএইচআরএ) করোনার সংক্রমণ ও এর লক্ষণগুলো প্রকাশ হওয়ার পাঁচদিনের মধ্যে যত দ্রুত সম্ভব ওষুধ মলনুপিরাভিরের ব্যবহার শুরুর সুপারিশ করেছে। করোনা ভাইরাসের জেনেটিকে ত্রুটি ঘটাতে সক্ষম অর্থাৎ করোনা ভাইরাস মেরে ফেলতে সক্ষম মলনুপিরাভ কোভিড সংক্রমণের পর পাঁচদিন দিনে দুইবার খাওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

মূলত সর্দি-জ্বরের চিকিৎসার জন্য তৈরি ওষুধটি করোনার বিরুদ্ধে পরীক্ষামূলক প্রয়োগে আশা জাগানো ফলাফল দেখিয়েছে। এই বড়ি সেবনে করোনার কারণে হাসপাতালে ভর্তি বা মৃত্যুর ঝুঁকি অর্ধেক কমেছে বলে প্রমাণ মিলেছে। মলনুপিরাভির আবিষ্কারক কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রবার্ট ডেভিস বলেন, “কোভিডের চিকিৎসা নিয়ে সব আলোচনাই এ ওষুধ বদলে দেবে।”

একেবারে নাজুক অবস্থার করোনা রোগীদের জন্য বা রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা যাদের একেবারে কম তাদের জন্য মলনুপিরাভির চিকিৎসাকে ‘যুগান্তকারী’ বলে অভিহিত করেছেন যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, “আজ আমাদের দেশের জন্য এক ঐতিহাসিক দিন। কারণ, কোভিড চিকিৎসায় ঘরে বসে নেয়া যাবে এমন জীবানুপ্রতিরোধী ওষুধ বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে যুক্তরাজ্য অনুমোদন দিলো।”

করোনার মুখে খাওয়ার ওষুধ মলনুপিরাভ যুক্তরাষ্ট্রেও অনুমোদনের সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় রয়েছে। মার্কিন কর্তৃপক্ষ চলতি মাসেই এই ওষুধ অনুমোদনের জন্য বৈঠকে বসবে বলে রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

 

মু: মাহবুবুর রহমান
নিউজিল্যান্ডের মেসি ইউনিভার্সিটির পিএইচডি গবেষক



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Developed with by
Top