সিডনী মঙ্গলবার, ১৩ই এপ্রিল ২০২১, ৩০শে চৈত্র ১৪২৭


৯ এপ্রিল থেকে বাংলাদেশিদের যুক্তরাজ্যে ঢোকার পথ বন্ধ : মু: মাহবুবুর রহমান 


প্রকাশিত:
৬ এপ্রিল ২০২১ ১৩:০১

আপডেট:
১৩ এপ্রিল ২০২১ ০৮:১৭

 

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ, পাকিস্তান, কেনিয়া এবং ফিলিপাইনকে লাল তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাজ্য। এর ফলে এসব দেশের নাগরিকদের যুক্তরাজ্যে প্রবেশ নিষিদ্ধ হয়ে গেল। আগামী ৯ এপ্রিল স্থানীয় সময় ভোর ৪টা থেকে এ আদেশ কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে দেশটির ডিপার্টমেন্ট ফর ট্রান্সপোর্ট। 

যুক্তরাজ্যের ডিপার্টমেন্ট ফর ট্রান্সপোর্টের ভ্রমণ বিষয়ক গাইডলাইনে বলা হয়েছে, কোনো যাত্রী যদি এসব দেশ থেকে ব্রিটেনে যাওয়ার চেষ্টা করেন বা সর্বশেষ দশ দিনের মধ্যে ওই তালিকার কোনো দেশে ভ্রমণ করে থাকেন, তাহলেও তিনি যুক্তরাজ্যে প্রবেশের অনুমতি পাবেন না।   

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, যুক্তরাজ্যকে নতুনভাবে করোনার হাত থেকে রক্ষা করতে বাংলাদেশ, ফিলিপাইন, পাকিস্তান ও কেনিয়াকে লাল তালিকাভুক্ত (‘রেড লিস্ট’) করা হয়েছে। ঐ তালিকায় আগে থেকেই আরও ৩৫টি দেশ রয়েছে। ব্রিটেনে টিকাদান কর্মসূচি পুরোদমে চলছে। তারই মাঝে কোভিড-১৯ ভাইরাসের নতুন ধরন যাতে এদেশে ঢুকতে না পারে, সেজন্যই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সরকারের ডিপার্টমেন্ট ফর ট্রান্সপোর্ট।  

তবে ব্রিটিশ কিংবা আইরিশ পাসপোর্টধারী যাত্রী এবং যাঁদের ব্রিটেনে বসবাসের অনুমতি রয়েছে, তাঁরা এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বেন না। তবে তাঁদেরকে বাধ্যতামূলকভাবে সরকার নির্ধারিত হোটেলে নিজের খরচে ১০ দিন কোয়ারেন্টিনে কাটাতে হবে। 

যুক্তরাজ্যের নতুন এই নিষেধাজ্ঞায় যারা বাংলাদেশি পাসপোর্ট ব্যবহার করেন, মানে যাদের ব্রিটিশ নাগরিকত্ব নেই এবং স্টুডেন্ট, ভিজিটর ইত্যাদি ক্যাটাগরির বাংলাদেশিরা পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে ঢুকতে পারবেন না। বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে প্রচুর শিক্ষার্থী পড়াশোনার উদ্দেশে যুক্তরাজ্যে যাওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছেন। ব্রিটিশ সরকারের নতুন এ নিয়মে বিপদে পড়তে চলেছেন এইসব শিক্ষার্থীরা।    

করোনা শুরুর পর থেকে এই প্রথম বাংলাদেশি নাগরিকদের উপর দেশটিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিল যুক্তরাজ্য। অন্যদিকে, বাংলাদেশের স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে বলা হচ্ছে, বর্তমানে বাংলাদেশে যুক্তরাজ্যের ধরন ছড়িয়ে পড়ার কারণেই করোনা সংক্রমণ উর্ধ্বমুখী। যুক্তরাজ্যের ধরন বেশি দ্রতু ছড়ায় বলে পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন করোনা বিশেষজ্ঞরা। 

এদিকে গত বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) বাংলাদেশ পুরো ইউরোপ ও ১২টি দেশের নাগরিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিলেও যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের ক্ষেত্রে দেয়া হয়নি। বাংলাদেশের এ নিষেধাজ্ঞা আপাতত ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত বহাল থাকবে বলে জানিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। নিষেধাজ্ঞায় ইউরোপ ছাড়া অন্য দেশগুলো হলো- কুয়েত, লেবানন, কাতার, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, বাহরাইন, চিলি, জর্ডান, পেরু, দক্ষিণ আফ্রিকা, তুরস্ক ও উরুগুয়ে।  

 

মু: মাহবুবুর রহমান  
নিউজিল্যান্ডের মেসি ইউনিভার্সিটির পিএইচডি গবেষক 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top