সিডনী সোমবার, ২১শে জুন ২০২১, ৬ই আষাঢ় ১৪২৮


বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে হেফাজতের আংশিক কমিটি ঘোষণা


প্রকাশিত:
৭ জুন ২০২১ ১৪:৩৪

আপডেট:
২১ জুন ২০২১ ০৩:০৩

 

প্রভাত ফেরী: সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে ৩৩ সদস্যের আংশিক কমিটি ঘোষণা করেছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। 

নতুন এ কমিটিতে হেফাজতের প্রতিষ্ঠাতা আমির প্রয়াত আল্লামা শাহ আহমদ শফীর বড় ছেলে মাওলানা ইউসুফ মাদানীসহ চট্টগ্রামের ১৪ জনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এতে সহকারী মহাসচিবের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদটি শফীর বড় ছেলে মাওলানা ইউসুফ মাদানীকে দেওয়া হয়েছে । 

যদিও সদ্য ঘোষিত কমিটিতে আহমদ শফীর ছোট ছেলে মাওলানা আনাস মাদানীসহ শফী অনুসারীদের বেশ কয়েকজনকে রাখা হবে বলে একটি গুঞ্জন সপ্তাহ খানেক ধরে চলছিল। তবে আজ কমিটি ঘোষণার মাধ্যমে বিষয়টি স্পষ্ট হয়েছে। বর্তমান কমিটিতে শফি অনুসারীদের তেমন কাউকে রাখা হয়নি। 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে আল্লামা শফীর পুত্র মাওলানা আনাস মাদানীর মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে তিনি কল রিসিভ করেননি।

পরবর্তীতে আনাস মাদানীর অনুসারী হিসেবে পরিচিত হেফাজতের সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মঈনুদ্দীন রুহীর সঙ্গে যোগাযোগ করা চেষ্টা করলে তিনিও ফোন রিসিভ করেননি। তবে নাম প্রকাশ না কথা শর্তে তাদের এক অনুসারী জানান, তারা পাল্টা কমিটি করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

এদিকে, হেফাজতের সদ্য ঘোষিত কেন্দ্রীয় কমিটিতে চট্টগ্রামের ১৪ জনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তারা হলেন-সংগঠনটির আমির আল্লামা হাফেজ জুনাইদ বাবুনগরী, নায়েবে আমির মাওলানা সালাহউদ্দীন নানুপুরী (ফটিকছড়ি), মাওলানা ইয়াহইয়া (হাটহাজারী), মাওলানা তাজুল ইসলাম (চট্টগ্রাম), মাওলানা মুফতী জসিমুদ্দীন (হাটহাজারী)। 

তবে সংগঠনটির বর্তমান মহাসচিব আল্লামা হাফেজ নূরুল ইসলাম জিহাদী ঢাকার স্থায়ী বাসিন্দা হলেও তার পৈত্রিক নিবাস চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলায়। 

এছাড়া যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা লোকমান হাকীম (চট্টগ্রাম), মাওলানা আইয়ুব বাবুনগরী (ফটিকছড়ি), সহকারী মহাসচিব মাওলানা ইউসুফ মাদানী (রাঙ্গুনিয়া), সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদ্রিস (হাটহাজারী), অর্থ-সম্পাদক মাওলানা মুফতি মুহাম্মাদ আলী (হাটহাজারী), সহ-অর্থ সম্পাদক মুফতী হাবিবুর রহমান কাসেমী (হাটহাজারী) এবং সদস্য মাওলানা ফোরকানুল্লাহ খলিল (চট্টগ্রাম) ও মাওলানা মাহমুদল হাসান (হাটহাজারী)।

তাছাড়া বিগত কমিটিতে চট্টগ্রামের বেশ কয়েকজন নেতা নানা ইস্যুতে বিতর্কে জড়িয়ে পড়ায় কমিটি থেকে বাদ পড়েছেন। 

তারা হলেন-সংগঠনটির সাবেক যুগ্ম মহাসচিব নাছির উদ্দিন মুনির, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী, প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া নোমান ফয়জী, শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক মুফতি হারুন ইজহার, সহকারী অর্থ সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ আহসান উল্লাহসহ আরও অনেক নেতা।

প্রসঙ্গত, হেফাজতে চলমান অস্থিরতা ও দেশের নাজুক পরিস্থিতির কথা বিবেচনা নিয়ে গত ২৫ এপ্রিল হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ও মহানগর কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করেছিল সংগঠনটির বর্তমান আমির আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী।

তারও আগে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা আমির আহমদ শফীর মৃত্যুর পর গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর বাবুনগরীকে আমির ও নুরুল ইসলাম জিহাদীকে মহাসচিব করে ১৫১ সদস্যের কমিটি করা হয়। পরে কমিটি ২০১ সদস্যবিশিষ্ট করা হয়। ওই কমিটিতে আহমদ শফীর ছেলে আনাস মাদানীর অনুসারী হিসেবে পরিচিত নেতাদের কাউকে রাখা হয়নি।

 

 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top