সিডনী সোমবার, ২১শে জুন ২০২১, ৬ই আষাঢ় ১৪২৮


আগামী শুক্রবার থেকে কাবুলে দূতাবাস বন্ধ করবে অস্ট্রেলিয়া


প্রকাশিত:
২৫ মে ২০২১ ১২:২২

আপডেট:
২৫ মে ২০২১ ১২:২৩

 

প্রভাত ফেরী: আফগানিস্তানে দূতাবাস বন্ধ করে দেবে অস্ট্রেলিয়া। আবার তা চালু হবে পরিস্থিতি দেখে।
মার্কিন সেনা আফগানিস্তান ছাড়ছে। ন্যাটো বাহিনীও। কাবুলের পরিস্থিতি এখন ভাল নয়। এই অবস্থায় আগামী শুক্রবার থেকে কাবুলে দূতাবাস বন্ধ করে দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন এই ঘোষণা করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, পরিস্থিতি যখন দূতাবাস খোলার অনুকূল হবে, তখন তা আবার খোলা হবে।
অ্যামেরিকা ইতিমধ্যেই সেনা প্রত্যাহারের কাজ শুরু করে দিয়েছে। আগামী ১১ সেপ্টেম্বর প্রায় সব সেনাই আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ফিরবেন। ওই দিন হলো অ্যামেরিকার ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার ও পেন্টাগনের উপর আল কায়দার আক্রমণের ২০ তম বার্ষিকী।
প্রধানমন্ত্রী মনে করছেন, আফগানিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি অনিশ্চিত হয়ে পড়ছে। অ্যামেরিকা ও ন্যাটো বাহিনী পুরোপুরি চলে যাওয়ার পর অনিশ্চয়তা আরো বাড়বে। এই অবস্থায় তিনি কোনো ঝুঁকি নিতে চাইছেন না।
আফগানিস্তানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধের ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে একটি গবেষণা প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ব্রাউন ইউনিভার্সিটি৷ গবেষণায় নিহতের সংখ্যা, যুক্তরাষ্ট্রের ব্যয়ের পরিমাণসহ নানা দিক বেরিয়ে এসেছে৷ এ যুদ্ধে পাকিস্তানের কেমন ক্ষতি হয়েছে উঠে এসেছে সেই তথ্যও৷
অ্যামেরিকা বেশ কিছুদিন ধরে আফগান সেনাদের প্রশিক্ষণ দিয়েছে। তারা যাতে তালেবানের মোকাবিলা করতে পারে, তার চেষ্টা করেছে। কিন্তু মার্কিন সেনা দেশে ফিরে যাওয়ার পর আফগান সরকার ও সেনা কীভাবে পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে পারবে তা নিয়ে সংশয় আছে।
(এপি, রয়টার্স)



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top