সিডনী শুক্রবার, ১৯শে জুলাই ২০২৪, ৪ঠা শ্রাবণ ১৪৩১


সিডনিতে শ্রীকান্ত আচার্যঃ লাইভ ইন কনসার্ট অনুষ্ঠানে মুগ্ধ দর্শক


প্রকাশিত:
১৫ মে ২০২৪ ১৭:১৩

আপডেট:
১৫ মে ২০২৪ ১৭:১৫

 

গত ১১ মে শনিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬ঃ৩০ মিনিটে সিডনির সি থ্রি সিলভারওয়াটার অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হলো দুই বাংলার জনপ্রিয় শিল্পী শ্রীকান্ত আচার্যের একক সংগীতানুষ্ঠান শ্রীকান্ত আচার্যঃ লাইভ ইন কনসার্ট। এই কনসার্ট যৌথভাবে আয়োজন করেছিল সিডনির অন্যতম জনপ্রিয় পত্রিকা এবং মাল্টি মিডিয়া সংস্থা প্রভাত ফেরী এবং সিডনি মাল্টি কালচারাল সোসাইটি ইন্ক। দুই বাংলার দুই সংগঠন একত্রিত হয়ে এটাই সিডনিতে বড় কোন অনুষ্ঠানের প্রথম আয়োজন ছিল।

পাবলিসিটি এবং মার্কেটিং এ ছিল সিডনি বিগ বি মিডিয়া এবং এন্টারটেইনমেন্ট। বিগ বি মিডিয়ার কর্ণধার বাসব রায় জানান, অনুষ্ঠানের এক মাস পূর্বেই ৭০০ সিটের সব টিকেট বিক্রি হয়ে যায়। সিডনিতে বসবাসরত দুই বাংলার মানুষের কাছে শ্রীকান্ত আচার্য অত্যন্ত জনপ্রিয় শিল্পী। অনুষ্ঠানের দিন পর্যন্ত বহু মানুষ টিকেট না পেয়ে হতাশা ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে অংশ নিতে ৫ জন যন্ত্রশিল্পীদের নিয়ে শ্রীকান্ত আচার্য ৭ মে মংগলবার সিডনিতে পৌঁছান। সাথে তাঁর স্ত্রী এবং কন্যা ছিলেন। ১২ বছর পূর্বে তিনি আরো দুইবার গানের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে অস্ট্রেলিয়াতে আসেন।


অনুষ্ঠানের দিন প্রবল বর্ষণ উপেক্ষা করে সিডনিতে বসবাসরত দুই বাংলার দর্শকদের উপস্হিতিতে অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণ কানায় কানায় ভরে ওঠে। মন্চে দাড়িয়ে দর্শকদের উদ্দেশ্যে প্রভাত ফেরীর কর্ণধার শ্রাবন্তী কাজী আশরাফী বলেন, প্রভাত ফেরী শুধু একটি পত্রিকাই নয়, এটি একটি প্রতিষ্ঠান, একটি সংস্থা, দুই বাংলার সাহিত্য ও সংস্কৃতি প্রেমি মানুষদের আস্থার জায়গা, দুই বাংলার মানুষের একটি সেতু বন্ধন। আজ প্রভাত ফেরীর জন্য একটি বিশেষ দিন। প্রভাত ফেরী এই বছর ৬ বছরে পা রাখল। প্রভাত ফেরীর এই ৬ষ্ঠ বর্ষপূর্তিকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য আপনাদের সবাইকে নিয়ে আজকের এই আয়োজন।


অনুষ্ঠানের শুরুতে কবি গুরুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শ্রীকান্ত আচার্য তাঁর যাদুকরী গলায় একটি রবীন্দ্র সংগীত পরিবেশনা করেন। এরপর একে একে ‘ভাল আছি, ভাল থেকো...’, ‘আমার সারাটা দিন মেঘলা আকাশ….’, ‘আমি খোলা জানালা …..’, ‘কেনো দূরে থাকো…….’, ‘এই পথ যদি না শেষ হয়…………’, ‘আমায় প্রশ্ন করে নীল ধ্রুব তারা….,’ প্রভৃতি জনপ্রিয় গান গেয়ে শত শত দর্শক-শ্রোতাকে মুগ্ধ করেন। প্রিয় গানের অনুরোধের পাশাপাশি কখনো হাততালি আবার কখনো পিনপতন নিরবতায় দর্শক-শ্রোতারা শিল্পীর গানগুলো উপভোগ করেন। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে আয়োজকদের পক্ষ থেকে শ্রীকান্ত সহ যন্ত্রশিল্পীদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন শ্রাবন্তী কাজী, সোলায়মান দেওয়ান, অরুপ এবং অর্নব সাহা। অনুষ্ঠানে তাঁর শেষ গান ‘এই রাত তোমার আমার’ গানটি গাওয়ার সময় অডিটোরিয়াম ভর্তি দর্শক শ্রোতারা তাঁর গানের সাথে গলা মিলান। তখন হলের ভিতরে এক অপূর্ব দৃশ্যের অবতারনা হয়। গান শেষ হওয়া মাত্র সবাই আনন্দ ও শ্রদ্ধায় দাড়িয়ে হাত তালি দিতে দিতে তাদের প্রিয় শিল্পীর প্রতি ভালবাসা এবং শ্রদ্ধা জানান। তাঁর মতো একজন শিল্পীকে অনুষ্ঠানে আনায় দর্শকেরা আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান।


অনুষ্ঠানের বিশেষ বৈশিষ্ট্য ছিল এখানে কোনো বক্তৃতা পর্ব ছিল না। এমনকি স্পন্সরদেরও মঞ্চে ডাকা হয়নি। আয়োজকদের লক্ষ্য ছিল সময় নষ্ট না করে দর্শক-শ্রোতাদের বেশি বেশি গান শোনানো।

সিডনি মাল্টি কালচারাল সোসাইটি ইন্কের পক্ষ থেকে অর্নব সাহা বলেন, প্রবাসে সংগীতের নান্দনিক ধারাকে শুদ্ধ পরিবেশনায় উপস্থাপন করতে সিডনি মাল্টি কালচারাল সোসাইটি বদ্ধপরিকর। তারই ফলে শ্রীকান্ত আচার্যের মতো একজন জনপ্রিয় ও গুণী শিল্পীকে নিয়ে আমাদের এই আয়োজন। অনুষ্ঠানটি সন্চালনায় ছিলেন শ্রাবন্তী কাজী আশরাফী এবং তিস্তা চৌধুরী। পৃষ্ঠপোষকতায় ছিল এম্বি বায়ার্স, কে এইচ আই ইন্টারনাল একাউন্টিং সিডনি পিটিওয়াই লিমিটেড, দেবীকা মাইগ্রেশন সার্ভিস, ডিটিডিসি। রেফল ড্র স্পন্সর করেছিল স্ট্যামফোর্ড এডুকেশন। অনুষ্ঠানে অতিথিদের মধ্যে উপস্হিত ছিলেন বাংলাদেশ থেকে আগত রাজনৈতিক বিশ্লেষক, লেখক, সম্পাদক ও নব্বইয়ের স্বৈরাচার-বিরোধী আন্দোলনের তুখোড় ছাত্রনেতা সুভাষ সিংহ রায়, এবং সাবেক সংসদ সদস্য মমতা লাভলী এবং স্বনামধন্য নাট্য ব্যক্তিত্ব ও কথা সাহিত্যিক শাহান আরা জাকির।


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Developed with by
Top