সিডনী বৃহঃস্পতিবার, ২১শে জানুয়ারী ২০২১, ৮ই মাঘ ১৪২৭


সর্ষে ক্ষেতে ঘোর বিস্ময় : মালিহা পারভীন


প্রকাশিত:
৯ জানুয়ারী ২০২১ ১৪:১১

আপডেট:
২১ জানুয়ারী ২০২১ ২০:১৭

 

নব যৌবনা সর্ষে ক্ষেতের  সাথে দেখা হলো এক  হিমেল ভোরে--
শিশির চাদরে ঢেকে শুয়ে আছে যেন এক বালিকা বধু।
শীতাশ্রু ছুঁয়েছে তার হলুদ পেলব ঠোঁট,
রাতের জোছনারা সাজিয়েছে মিলন বাসর।

আকাশ আরশীতে যখন সে দেখে অভিমানি মুখ
হিরন্ময় অতীত যেন দেখি তার মুখে।
প্রকৃতির প্রেম পাঠায় যখন সবুজ পাতার চিঠি
রাত জাগা ফিনিক্স পাখি ডাকে বুকের গহীনে।

আমি দেখি সর্ষে ক্ষেতের হলুদ নদির স্রোত,
সাধারন পাঁপড়ি বিন্যাসে ঘোর এক বিস্ময় !
সোনালি আলোয় আঁকা মাথার সিঁদুর তার,
মঘামতি পল্লবে কাঁপে আবেগ জলের ফোঁটা।
মেঠো পথে ছবি আঁকে মায়াবি সে ধুলো,
ভ্রমরের পাখনায় ভাসে সাত রঙা ধনু।
দেখি আমি শীর্ণ নদী ধার ঘেঁষে গিয়েছে চলে তার
আনমনা হিজলের সারি দাঁড়িয়ে কি জানি কি ভাবে!
মাঝখানে সরু পথ কোমরের বিছার মতন জড়িয়ে থাকে,
জোড়া শালিকেরা রোদ মেখে মাতে অভিসারে।
অচেনা সুর বাজে কোন সে সুদুর থেকে
বিস্ময় মেখে দেখি এই ছবি অপলক।

দেখি মায়াবী কুয়াশা ভোর,
টলটলে হলদে স্রোত,
মৌতাল লিলুয়া হাওয়ায় ওড়ে
মায়ের হলুদ শাড়ির আঁচল।

আমি আর  সর্ষে ক্ষেত--
দুখ জাগানিয়া স্মৃতি বিস্মৃত-
শিশিরে ভেজা পরাজিত ভুল প্রেম
ফিরে আসে হিম ভোর জীনের সুর্যাস্ত বেলায়। 

 

ডা: মালিহা পারভীন
কবি ও কথা সাহিত্যিক

সেগুনবাগিচা, ঢাকা

 

এই লেখকের অন্যান্য লেখা



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top