সিডনী শুক্রবার, ২২শে অক্টোবর ২০২১, ৬ই কার্তিক ১৪২৮


গাংচিল : মালিহা পারভীন


প্রকাশিত:
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৩:০৮

আপডেট:
২২ অক্টোবর ২০২১ ০৫:৫০

 

জলের ওপারে জল শুয়ে থাকে দিগন্ত রেখায়
অলস আবেশে -
এপাড়ের ক্ষুদ্র আমি দেখি
মিহিন সূতার সোনালি কাজ সুর্যাস্ত মেলায়।

দৃষ্টি সীমায় চোখ চলে যায়
আকাশ আর পানির বিভেদ ভাংগা ঈর্ষাহীন মিলন,
মানুষেরই মাঝে কেন তকবে এতো ভাগ - যোগের অংক কষা !

দূরে ওই বুকটান মেঘ পা ভিজিয়ে বসে নিথর ঢেউয়ে,
একেলা এল ছাতিম গাছ সরল রেখা হয়ে জল সাম্রাজ্যে ' কোথাও কেউ নেই ' দীর্ঘশ্বাসে ভিখারি হয়ে দাঁড়িয়ে ঠাঁই,
হাওরের স্বচ্ছ জলে বিবাগী পূর্ণিমায় হিজল কুমারির স্বেচ্ছা সমর্পন,
বিস্ময় আর মুগ্ধতার ডানা মেলে ডুবে যায় মায়াবি জোছনা।

এই পাড়ে হিসেবের শিকল পরা মানুষের বেচাকেনা প্রেম, মুগ্ধ মন মেকি রঙ মাখা,
মানুষই ভুলে যায় অন্ধকার মুখোশের পিছনে আলোর মুখ।।

তবু একদিন যন্ত্রযানের নিস্প্রাণ বৈঠায় কোনো মাঝি রাখে তার শীর্ণ হাত,
ভেসে চলে স্বপ্ন তার ডিংগায় চড়ে উজানে উজানে,
একদিন সেও গাংচিল হবে।

 

এই লেখকের অন্যান্য লেখা



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top