সিডনী বুধবার, ২৭শে মে ২০২০, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭


করোনার মধ্যে ইউরোপিয়ান ফুটবল লিগ ’বুন্দেসলিগা’ মাঠে গড়াচ্ছে আজ


প্রকাশিত:
১৬ মে ২০২০ ১৪:০০

আপডেট:
২৭ মে ২০২০ ১১:২৭

ফাইল ছবি

 

প্রভাত ফেরী:  ইউরোপের অন্য সব লিগকে অনুসরণ করে গত ১৩ মার্চ থেকে স্থগিত হয়েছিল বুন্দেসলিগা। তবে ডিএফএল এবং জার্মান সরকারের অনুমতি সাপেক্ষে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার সব বিধান মেনে ৬ এপ্রিল থেকে ছোট পরিসরে অনুশীলন শুরু করে ক্লাবগুলো, যা পর্যায়ক্রমে পূর্ণাঙ্গ অনুশীলনে রূপ নেয়। অপেক্ষার প্রহর শেষ। আজ থেকে মাঠে ফিরছে বুন্দেসলিগা।

চলতি মৌসুমে ফ্রাঙ্কফুর্ট এবং ওয়ের্ডার ব্রিমেন বাদে অন্য ক্লাবগুলোকে আরও ৯টি ম্যাচ খেলতে হবে। আর ওই দুই ক্লাব খেলবে একটি করে বেশি ম্যাচ। বুন্দেসলিগা কর্তৃপক্ষের লক্ষ্য, জুনের ভেতরই লিগ শেষ করে ফেলা। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলোয়াড়দের ভ্রমণ জটিলতা এবং সমর্থকদের চাপ এড়াতে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলা আয়োজনের বিষয়ে প্রস্তাব করা হয়েছে। তবে বুন্দেসলিগা সেই পথে হাঁটছে না। প্রতিটি দল পূর্বের মতো নিজ নিজ হোম ভেন্যুতে খেলার সুযোগ পাচ্ছে। তবে সব ম্যাচই দর্শকবিহীন ফাঁকা মাঠে হবে।

ইউরোপের শীর্ষ লিগগুলোর মাঝে সামাজিক দূরত্বের বিধিনিষেধ মেনে সবার আগে অনুশীলন শুরু হয়েছিল বুন্দেসলিগায়। তবে দীর্ঘ সময় স্বাস্থ্য সুরক্ষা সম্পর্কিত সব নির্দেশনা মেনে চলার পরও গত সপ্তাহে সব ক্লাবে করোনা পরীক্ষার পর এফসি কোলনের ৩ খেলোয়াড়ের শরীরে করোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। তবে এরপরও অনুশীলন বন্ধ করেনি লিগ কর্তৃপক্ষ। এখন থেকে লিগে কোনো খেলোয়াড় করোনায় আক্রান্ত হলে সেটিকে চোট সমস্যার মতোই দেখা হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

এতে করে কোনো খেলোয়াড় বা স্টাফ করোনায় আক্রান্ত হলে শুধু তাকেই চিকিৎসার জন্য সেলফ-আইসোলেশনে পাঠানো হবে। এখন থেকে খেলোয়াড় এবং স্টাফদের সপ্তাহে দুবার করোনা পরীক্ষা করা হবে। প্রতিটি ক্লাবের খেলোয়াড় এবং স্টাফদের ভেন্যুতে যাতায়াতের জন্য তিনটি বাস ব্যবহৃত হবে, যাতে সামাজিক দূরত্বের বিধান ঠিকঠাক মেনে চলা যায়। এছাড়া খেলোয়াড়রা পূর্বের মতো একসঙ্গে মাঠে প্রবেশ করতে পারবে না বরং পৃথকভাবে মাঠে প্রবেশ করতে হবে তাদের।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top