সিডনী রবিবার, ৯ই আগস্ট ২০২০, ২৫শে শ্রাবণ ১৪২৭


বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ সুপার লিগের প্রথম আসর


প্রকাশিত:
২৭ জুলাই ২০২০ ১৬:৩২

আপডেট:
৯ আগস্ট ২০২০ ০২:২৮

ফাইল ছবি

 

প্রভাত ফেরী: বৈশ্বিক মহামারির কারণে কয়েক মাস পিছিয়ে গেছে, তবে একেবারে বাতিল হয়নি আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগ। আগামী বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের মধ্যকার তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডের মধ্য দিয়ে শুরু হতে যাচ্ছে বিশ্বকাপ সুপার লিগের প্রথম আসর।

আইসিসি ওয়ানডে র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষ ১২ দলের সঙ্গে ২০১৫-১৭ মৌসুমের সুপার লিগের চ্যাম্পিয়ন নেদারল্যান্ডসকে নিয়ে মোট ১৩ দলের হবে এই ওয়ানডে সুপার লিগ। যেখানে দলগুলো হোম এবং এওয়ে ভিত্তিতে ৪টি করে মোট ৮টি তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে। আয়োজক ভারত ব্যতীত এই লিগের শীর্ষ ৭ দল পাবে সরাসরি ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ।

আইসিসির মহাব্যবস্থাপক জিওফ অ্যালারডিস বলেছেন, ‘এই লিগের মাধ্যমে আগামী তিন বছর ওয়ানডে ক্রিকেটে বাড়তি মাত্রা যোগ হবে। কেননা এর সঙ্গে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ জড়িত। সুপার লিগের ফলে বিশ্বের ক্রিকেট দর্শকরা আরও জমজমাট খেলা দেখতে পারবে।’

প্রাথমিকভাবে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপের সূচি নির্ধারিত ছিল ফেব্রুয়ারি-মার্চে। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে দুইটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সূচিতে পরিবর্তন আনায় ওয়ানডে বিশ্বকাপও পিছিয়ে নেয়া হয়েছে অক্টোবর-নভেম্বর মাসে। এটি সুপার লিগের জন্য কল্যাণকর হয়েছে বলে জানালেন আইসিসি মহাব্যবস্থাপক।

তিনি বলেন, ‘গত সপ্তাহে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপটি সে বছরের শেষের দিকে আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এর ফলে করোনাভাইরাসের কারণে যেসব সিরিজ স্থগিত হয়ে গেছে, সেগুলো আয়োজন করার যথেষ্ঠ সময় পাবো আমরা। এখন আমরা মাঠের খেলার মাধ্যমেই বাছাইয়ের সিদ্ধান্ত নিতে পারব।’

বিশ্বকাপ সুপার লিগের প্রথম সিরিজটি খেলতে এরই মধ্যে ইংল্যান্ড পৌঁছে গেছে আয়ারল্যান্ড। মূল সিরিজ শুরুর আগে ইংল্যান্ড এ দলের বিপক্ষে ৩ উইকেটে এবং ইংল্যান্ড লায়নসের কাছে ৭ উইকেটে হেরেছে আইরিশরা। সিরিজের ম্যাচ তিনটি হবে ৩০ জুলাই, ১ আগস্ট ও ৪ আগস্ট।

 


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top