সিডনী মঙ্গলবার, ২৬শে জানুয়ারী ২০২১, ১২ই মাঘ ১৪২৭


পাকিস্তান সুপার লিগে দল পায়নি বাংলাদেশের কেউ


প্রকাশিত:
১২ জানুয়ারী ২০২১ ১৮:১৯

আপডেট:
২৬ জানুয়ারী ২০২১ ০৪:৪৮

 

আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে ২২ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে পাকিস্তান সুপার লিগের ( পিএসএলের) ৬ষ্ঠ সংস্করন। এই আসর উপলক্ষ্যে অংশগ্রহনকারী ৬টি ফ্রাঞ্চাইজি শনিবার প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে ৪৩ জন ক্রিকেটারকে রিটেইন লিস্টে নিয়েছে।

 

ররিবার ড্রাফটে থাকা অবশিস্টদের মধ্য থেকে ঘর গুটিয়েছে ৬টি ফ্রাঞ্চাইজি। পিএসএলের ড্রাফটে বাংলাদেশের ২০ ক্রিকেটার ছিলেন। সে কারণেই ড্রাফট অনুষ্ঠানের দিকে চোখ ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেটপ্রেমীদের।

 

 

রিটেইন এবং উন্মু্ক্ত ড্রাফটে ৩১ বিদেশি ক্রিকেটার দল পেয়েছেন। কোয়েটা গ্লাডিয়েটর্স কিনেছে টি-২০'র সবচেয়ে বড় বিনোদন ক্রিস গেইলকে। আফগানিস্তানের ৫ ক্রিকেটার পেয়েছেন দল। তবে পিএসএলের ড্রাফটে বাংলাদেশের কেউ পাননি দল।

 

 সবচেয়ে দামি প্লাটিনাম ক্যাটাগরিতে ছিলেন বাংলাদেশের বাঁ হাতি পেস বোলার মোস্তাফিজুর রহমান। তার বেজ প্রাইস ২ কোটি ৩০ লাখ ৪৪ হাজার রূপী। ১ কোটি ১৫ লাখ ২২ হাজার টাকার ডায়মন্ড ক্যাটাগরিতে ছিলেন অল রাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

 

 

৮২ লাখ ৩০ হাজার রূপীর গোল্ড  ক্যাটাগরির ড্রাফটে ছিলেন আবুল হাসান রাজু, আফিফ হোসেন ধ্রুব, আল আমিন হোসেন, অলক কাপালি, জুবায়ের হোসেন লিখন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নাসির হোসেন, সানজামুল ইসলাম এবং তাসকিন আহমেদ।

 

৪১ লাখ ১৫ হাজার রূপীর সিলভার ক্যাটাগরীতে ছিলেন আবু সায়েম চৌধুরী, এনামুল হক বিজয়, মেহেদী হাসান, মেহেদী হাসান রানা, মনির হোসেন, নাসুম আহমেদ এবং রাফসান আল মাহমুদ আছেন।তবে রবিবার পিএসএলের এই ড্রাফটে বিক্রি হননি বাংলাদেশের কোন ক্রিকেটার।

 

পিএসএল চলাকালে বাংলাদেশ দল পর পর ২টি  দ্বি-পাক্ষিক সফরসূচির ব্যস্ততায় থাকবে। আগামী ২০ জানুয়ারি থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের ওডিআই সিরিজ এবং ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলে পরবর্তী সিরিজের প্রস্তুতি নিতে হবে। আগামী ১২ থেকে ২৭ মার্চ নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দল খেলবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে এবং ৩ ম্যাচের টি-২০ সিরিজ।সে কারণেই ড্রাফটে ২০ ক্রিকেটারকে থাকার পরও বাংলাদেশের কোন ক্রিকেটারকে কেনেনি পিএসএলের ফ্রাঞ্চাইজিরা।


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top