সিডনী সোমবার, ২১শে জুন ২০২১, ৬ই আষাঢ় ১৪২৮


ডে ব্রুইনে টানা দ্বিতীয়বার জিতলেন বর্ষসেরা পুরস্কার


প্রকাশিত:
৭ জুন ২০২১ ১৫:১৭

আপডেট:
২১ জুন ২০২১ ০৪:৪১

 

প্রভাত ফেরী: সদ্য শেষ হওয়া ক্লাব মৌসুমে ম্যানচেস্টার সিটির সফল পথচলায় দারুণ অবদান রাখার স্বীকৃতি পেলেন কেভিন ডে ব্রুইনে। ইংল্যান্ডে খেলা ফুটবলারদের ভোটে টানা দ্বিতীয়বারের মতো জিতলেন বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার।

২০২০-২১ মৌসুমের প্রফেশনাল ফুটবলার্স অ্যাসোসিয়েশনের (পিএফএ) বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জিততে ডে ব্রুইনে পেছনে ফেলেছেন ক্লাব সতীর্থ ফিল ফোডেন, রুবেন দিয়াস, ইলকাই গিনদোয়ান, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ব্রুনো ফের্নান্দেস ও টটেনহ্যাম হটস্পারের হ্যারি কেইনকে।

চার বছরের মধ্যে সিটির এবার তৃতীয় প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা জয়ে ছয়টি গোল করে ও সতীর্থদের দিয়ে ১২টি করিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন ডে ব্রুইনে। এবার লিগ কাপও জিতেছে ম্যানচেস্টারের দলটি, উঠেছিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগেরও ফাইনালে।

আর্সেনালের হয়ে সাবেক স্ট্রাইকার থিয়েরি অঁরি ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর পর তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে টানা দুবার পুরস্কারটি জিতলেন ডে ব্রুইনে।

উচ্ছ্বসিত এই বেলজিয়ান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছেন, “টানা দ্বিতীয়বারের পুরস্কারটি জিতে আমি সম্মানিত ও গর্বিত বোধ করছি।“

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এই মৌসুমে মোট ৪০ ম্যাচ খেলে ১০ গোল করার পাশপাশি সতীর্থদের দিয়ে ১৮টি করিয়েছেন তিনি। অসাধারণ এই স্বীকৃতি পাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় ডে ব্রুইনে তারকা রোনালদো ও অঁরির পাশে নিজের নাম উচ্চারিত হওয়ায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন।

“ফুটবলের দুই কিংবদন্তির কথা বলা হচ্ছে-একজন হলেন সবসময়ের সেরা স্ট্রাইকারদের অন্যতম (থিয়েরি অঁরি) এবং আরেকজন বর্তমানের সেরা দুই ফুটবলারের একজন (রোনালদো), তাদের মতোই কোনো কিছু করতে পারাটা দুর্দান্ত।”

“দলগত ভাবে সবাই সব শিরোপা জিততে চায় আর ব্যক্তিগতভাবে এটাই হয়তো সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পুরস্কার। প্রতি ম্যাচে আমি যাদের বিপক্ষে খেলি, সেই সব প্রতিদ্বন্দ্বীদের ভোটে সেরা হওয়ার অর্থ অনেক।“

গত ২৯ মে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে চেলসির বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরে যাওয়া ম্যাচে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের সঙ্গে সংঘর্ষে নাকে ও চোখে আঘাত পেয়ে ছিটকে পড়েছিলেন ডে ব্রুইনে। এরপর ছোট একটা অস্ত্রোপচার শেষে বর্তমানে ইউরোর জন্য জাতীয় দলে যোগ দেওয়ার অপেক্ষায় আছেন ২৯ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার।

সিটির যুব দল থেকে উঠে আসা ২১ বছর বয়সী ফোডেন জিতেছেন বর্ষসেরা তরুণ খেলোয়াড়ের পুরস্কার। এবারের প্রিমিয়ার লিগে ৯ গোল করে ও পাঁচটি করিয়ে ইংল্যান্ডের ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের দলে জায়গা করে নিয়েছেন এই মিডফিল্ডার।

নারী ফুটবলে পিএফএ’র বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন চেলসির ফরোয়ার্ড ফ্রান কির্বি।

 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top