সিডনী রবিবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ই আশ্বিন ১৪২৭


প্রাচীর পিছনের স্বর (নেপালি কবিতা) : কবি জয় ক্যাক্টস্


প্রকাশিত:
৩ আগস্ট ২০২০ ১৭:০৩

আপডেট:
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২২:৪৮

ছবিঃ কবি জয় ক্যাক্টস্ এবং অনুবাদক বিলোক শর্মা

 

কিছুক্ষন হয়ত শোনা যাবে না
কিছু মুহূর্ত হয়ত বোঝা যাবে না
শুধুমাত্র দমিত আমাদের স্বর
শুধুমাত্র দমিত আমাদের চিৎকার।

আদিম গুফা হতে নি:সৃত সেই আদি স্বর
অবরুদ্ধ মাত্র কিছুকাল
যেটি বাক্শক্তিহীন হয়ে আটকে রয়েছে
বিশৃঙখল ব্যবস্হার গলায়।

যেদিন ছিন্ন হবে সে গলাটি পরিবর্তনের খড়্গ দিয়ে
এবং বেরিয়ে পড়বে সে স্বরটি
বর্গ, বর্ণ ও ব্যাকরণের প্রাচীর ভেঙে
তখন জ্বলে উঠবে সম্পূর্ণ বিষমতা ও বিশৃঙ্খলতা
স্বরেরই উষ্ণতায় ভস্মীভূত হয়ে।

ক্ষমতার আড়ম্বরী সিংহাসনে বসে থাকা
ধসে যেতে উদ্যত সিদ্ধান্তের মুকুট হতে
আদেশের প্রতীক্ষায় থাকা কিছু জোড় বুটের কর্কশ শব্দ
সমাপ্তির কদমতালের দৃশ্য দেখে
ভেতরে-ভেতরেই আমরা উৎফুল্ল হই
ছিন্নকরনের পূর্বের মুক্তোমালার দাম্ভিকতা বুঝে।

সমাজের চেতনার পশ্চাতে প্রাচীরের উপস্হিতি
তুমি আমায় প্রাচীরের ওপারেই থাকতে বললে
সেটা আমি বিনম্রতায় মেনে নিয়েছি।
তুমি প্রাচীর ভেদ করে এদিকে আসতেও বারণ করলে
সেটিও স্বীকার করে নিয়েছি।

কিন্তু আজ আওয়াজ তুলতেই নিষেধ করলে
সেটি আমার স্বীকার্য নয় মহাশয়
মূক রাজনীতির ক্রীয়াশীলতা
সে আমায় স্বীকার্য নয়।

সে সময় কেন কথা বলবো না আমি?
এখনই বা কেন বলবো না?

 

(নেপালি কবিতা 'পর্খালপছিকো আওয়াজ''-এর বঙ্গানুবাদ)
অনুবাদ-বিলোক শর্মা, কবি/লেখক ডুয়ার্স, (প.বঙ্গ)



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top